খেজুরের গুড়ের পায়েস

খেজুরের গুড়ের পায়েস

খেজুরের গুড়ের পায়েস

রেসিপি ও ছবিঃ হেলেনা পারভিন রুমা

উপকরণঃ গরুর দুধ (ফুল ক্রিম) ২ লিটার
পোলাও এর চাল (আমি কালিজিরা চাল নিয়েছি) ১/২ কাপ
খেজুরের গুড় (ভেঙে নেয়া) দেড় কাপ
এলাচ (আস্ত) ৩-৪ টা
কনডেন্সড মিল্ক (না দিলেও চলবে) ১/২ কাপ
কিছু কিসমিস

আরও নিয়েছিঃ গার্নিশিং এর জন্য কিছু পেস্তা বাদাম কুচি

রান্না করার নিয়মঃ একটি বোলে চাল আধা ঘন্টা ভিজিয়ে রেখে একটি ছাঁকনিতে ছেঁকে নিন। এবার একটি পাতিলে দুধ, কনডেন্সড মিল্ক এবং এলাচ চুলায় দিয়ে অল্প আঁচে জ্বাল দিন। চুলার আঁচ বাড়ানো থাকলে পাতিলের তলায় কনডেন্সড মিল্ক লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। দুধ যখন কিছুটা ঘন হয়ে আসবে তখন এলাচগুলো উঠিয়ে ফেলে দিয়ে ২-৩ কাপ দুধ উঠিয়ে একটি বোলে রাখুন। এবার পাতিলের দুধে ছেঁকে রাখা চালগুলো দিয়ে একটু পর পর নাড়ার মধ্যে রাখতে হবে তা না হলে পাতিলের তলায় লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এবার উঠিয়ে রাখা দুধ কুসুম গরম থাকা অবস্থায় ভেঙ্গে রাখা গুড় গুলি দিয়ে নেড়ে গুলিয়ে নিন। এবার দুধের পাতিলে চালগুলো ফুটে গেলে খেজুরের গুড় দিয়ে গুলিয়ে রাখা দুধ আস্তে আস্তে পাতিলে মিশাতে হবে। এবার আরও কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে কিসমিস দিয়ে একটু পাতলা থাকা অবস্থায় নামাতে হবে কারণ পায়েস চুলা থেকে নামানোর পর ঠান্ডা হলে আরও ঘন হয়ে যায়। এবার একটি সার্ভিং ডিশে নিয়ে উপরে পেস্তা বাদাম কুচি ছিটিয়ে ঠান্ডা বা গরম পরিবেশন করুন মজাদার খেজুরের গুড়ের পায়েস।

নোটসঃ
* দুধ গরম অবস্থায় খেজুরের গুড় দিলে দুধ ফেটে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে, তাই দুধ চুলা থেকে নামিয়ে কুসুম গরম অবস্থায় গুড় মেশাতে হবে।
* মিষ্টির পরিমাণ আপনারা আপনাদের স্বাদ মতো কম অথবা বেশি নিতে পারেন।
* অনেকেই এই প্রশ্নটা করে থাকেন পায়েস আর ক্ষীর এই দুইটির মধ্যে পার্থক্য কি?? এর কারণ পায়েসের চাল আস্ত থাকে এবং পায়েস ঘন হয়।

রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা একটি ওয়েব ম্যাগাজিন। রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা, ঘুড়ি এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। “রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা“ হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গল্প ও কবিতার ওয়েবসাইটগুলোর মধ্যে অন্যতম। আমাদের ওয়েবসাইটটি দেশের গন্ডি পেরিয়ে ভারত, নেপাল, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশের মানুষের কাছে যেতে সক্ষম হয়েছে।