ট্রেস লেচেস কেক (মেক্সিকান)

ট্রেস লেচেস কেক (মেক্সিকান)

ট্রেস লেচেস কেক (মেক্সিকান)

রেসিপি ও ছবিঃ তাসনুভা মাহমুদ নওরিন

উপকরণঃ ময়দা ১ কাপ
চিনি ১ কাপ
ডিম ৩ টি
বাটার/ তেল ১/২ কাপ
ভ্যানিলা এসেন্স ১ চা চামচ
বেকিং পাউডার ১ চা চামচ
লবণ ১/৪ চা চামচ
তরল দুধ ১/৩ কাপ

মিশ্রণঃ ফুল ক্রিম তরল দুধ ১ কাপ
কনডেন্সড মিল্ক ১/২ কাপ বা একটু কম
এভাপোরেটেড মিল্ক ১ কাপ

রান্না করার নিয়মঃ প্রথমে নরমাল টেম্পেরেচারের ডিমগুলো কুসুম আর সাদা অংশ আলাদা করে নিন। কুসুমের সাথে ১ কাপ চিনি থেকে অর্ধেক দিয়ে বিট করে নিন। সাথে বাটার দিয়ে ভালোমতো বিট করুন যতক্ষণ না ডিমের রং চেঞ্জ হয়ে ক্রিমি ভাব চলে আসে। এরপর একে একে ময়দা, বেকিং পাউডার চেলে দিয়ে দিন সাথে ভ্যানিলা এসেন্স, দুধ, লবণ দিয়ে সব বিট করে এক পাশে রেখে দিন। অন্যদিকে ডিমের সাদা অংশে বাকি চিনি মিশিয়ে ক্রিম তৈরি করে নিন। এবার ক্রিম আগে মিশিয়ে আগে করে রাখা ময়দার মিশ্রণে আলতো হাতে চামচ দিয়ে মিশিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন যেন বেশি মেশানো না হয়। নয়ত কেকটা ফাপা থেকে যাবে। সবকিছু মিশানো হয়ে গেলে চারকোনা বেকিং প্যানে তেল ব্রাশ করে

ট্রেস লেচেস কেক (মেক্সিকান)

উপরে পার্চমেন্ট পেপার বিছিয়ে কেকের মিশ্রণ ঢেলে দিন। ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ৩০-৩৫ মিনিট বা ৪০ মিনিটও লাগতে পারে বেক করুন। কেক ৩০ মিনিট পর একটা টুথপিক ঢুকিয়ে বের করুন। যদি টুথপিক পরিষ্কার হয়ে আসে তাহলে বুঝতে হবে কেক তৈরি হয়ে গেছে। না হলে আরও কয়েক মিনিট বেক করে নামিয়ে নিন। এবার কেকের নিচের পেপার তুলে নিয়ে কেকটা প্যানে আবার বসিয়ে দিয়ে কাঁটা চামচ দিয়ে কেকের উপরে ফুটা করে দিন । অন্যদিকে বাটিতে তরল মিল্ক, এভাপোরেটেড মিল্ক আর কনডেন্সড মিল্ক মিশিয়ে কেকের উপর ছড়িয়ে দিন দেখবেন কেক দুধের মিশ্রণটা শুষে নিয়েছে। এবার ইচ্ছে হলে উপরে হুইপড ক্রিম বিছিয়ে দিয়ে ফ্রিজে রেখে ১/২ ঘণ্টা ঠাণ্ডা করে কেটে পরিবেশন করুন মজার এই কেক।

নোটঃ এভাপোরেটেড মিল্ক না পাওয়া গেলে ২ কাপ দুধকে ঘন করে ১ কাপ করে মিশিয়ে নিতে পারেন। মিষ্টি আপনার টেস্টের উপর তাই কনডেন্সড মিল্কটা নিজের ইচ্ছা মতো দিন। আবার নয়ত খুব বেশী মিষ্টি হয়ে যেতে পারে।

রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা একটি ওয়েব ম্যাগাজিন। রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা, ঘুড়ি এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। “রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা“ হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গল্প ও কবিতার ওয়েবসাইটগুলোর মধ্যে অন্যতম। আমাদের ওয়েবসাইটটি দেশের গন্ডি পেরিয়ে ভারত, নেপাল, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশের মানুষের কাছে যেতে সক্ষম হয়েছে।