স্পঞ্জ রসগোল্লা

স্পঞ্জ রসগোল্লা

স্পঞ্জ রসগোল্লা

রেসিপি ও ছবিঃ আনার সোহেল

উপকরণ

ছানা তৈরির উপকরণঃ তরল দুধ ২লিটার
দই ১ কাপ ও লেবুর রস ২ টে চামচ (দই দিতে না চাইলে শুধু ভিনেগার দিয়েও ছানা তৈরি করা যাবে) অথবা ভিনেগার ১/২ কাপ ও ৩ টে চামচ পানি মিশিয়ে দিতে হবে।
বাটার বা ঘি ১ টে চামচ

ছানা তৈরির নিয়মঃ প্রথমে দুধের সাথে বাটার বা ঘি দিয়ে জ্বাল দিন। দুধে বলক আসলেই চুলা বন্ধ করে দিন। দুধের গরম ধোঁয়া শেষ হয়ে আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এবার ভিনেগার মিশিয়ে আস্তে আস্তে অথবা দই ও লেবুর রস দিয়ে সবুজ পানি বের হলে ছানাটা ছেঁকে নিন। চাকনির উপর সাদা সুতির কাপড় রেখে তার উপর ছানা ঢেলে নিন। তারপর ছানা ধুয়ে ভাল করে কলের পানি দিয়ে এবং ২ কাপ মত ঠান্ডা পানি দিয়ে আবার ধুয়ে নিন। তারপর হাতে চেপে চেপে যতটুকু সম্ভব পানি ঝরিয়ে নিন। এবার বেসিনের কলের সাথে ঝুলিয়ে রাখুন ১ থেকে দেড় ঘন্টা।

সিরা তৈরির উপকরণ ও তৈরির নিয়মঃ একটি তলা ভারী পাতিলে ১ ও ১/২ কাপ চিনি এবং ৬ কাপ পানির একসাথে রেখে চুলায় জ্বাল দিন। তারপর এলাচি ২ টি (ইচ্ছা) পাতলা সিরা তৈরি করুন। ফুটে উঠলেই চুলা বন্ধ করে দিন। চুলায় বেশিক্ষণ থাকার কারণে সিরা ঘন হয়ে যেতে পারে।

ছানার বল তৈরির উপকরণঃ ছানা ২ কাপ
ময়দা ২ চা চামচ
চিনি ১ ও ১/২ চা চামচ

মিষ্টি বানানোর নিয়মঃ প্রথমে ছানাকে ট্রেতে ঢেলে নিয়ে ভাল করে ৫-৬ মিনিট হাত দিয়ে মথে নিন। এবার ময়দা, চিনি দিয়ে আবার মথে নিন ৫ মিনিটের মত। যখন দেখবেন হাতে ছানার তেল লাগবে তখন বুঝতে হবে ছানা মথা টিক হয়েছে। এবার সিরার জ্বাল বাড়িয়ে দিন। এখন ছানার ডো থেকে ছোট ছোট বল বানিয়ে নিয়ে যখন সিরায় বলক আসবে তখন ছানার বলগুলো একসাথে দিয়ে ঢাকনা দিয়ে মাঝামাঝি থেকে সর্বোচ্চ আঁচে ১৫ মিনিট রান্না করুন। মাঝে একবার ঢাকনা তুলে দেখে নিন। বলগুলো ফুলে দ্বিগুণ হবে। ১৫ মিনিট পর ঢাকনা তুলে ডেকচির হাতল ধরে হালকা নাড়িয়ে নিন। চুলার সর্বোচ্চ আঁচ থেকে কমিয়ে মাঝামাঝি রাখুন। খেয়াল রাখবেন সিরা যেন ঘন না হয়। এই জন্য ১/২ কাপ গরম পানি সিরাতে দিন। এবার ঢেকে আরো ১৫ মিনিট মত জ্বাল দিন। ব্যাস হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। একদম ঠাণ্ডা করে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পরিবেশ করুন ।

কিছু প্রয়োজনীয় কথাঃ
১। রসগোল্লা প্রেসার কুকারেও করা যায়। এই পদ্ধতিতে করতে হলে প্রথমে সিরায় বলক আসলে বলগুলো ছেড়ে দিন এবং ঢাকনা লাগিয়ে দিন। ১ সিটিতেই চুলা বন্ধ করে দিন। প্রেসার কুকার পুরাপুরি ঠান্ডা হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। একদম ঠান্ডা হলে ঢাকনা খুলে রসগোল্লা বাটিতে দিয়ে দিন।
২। মিষ্টি বানানোর সময় খুব সময় নিয়ে করতে হবে। কোন রকম তারাতাড়ি করা যাবে না । তাহলে মিষ্টি ভাল হয় না।
৩। ছানাকে বেশি চেপে চেপে পানি বের করা যাবে না । যতটুকু সম্ভব হালকা ভাবে চেপে পানি বের করবেন।
৪। সিরাতে মিষ্টির পরিমাণ বাড়াতে চাইলে করনীয় হবে রসগোল্লাগুলো তুলে নিয়ে একটি বাটিতে তারপর একই সিরাতে আর ১ কাপ পানি আর পরিমান মত চিনি দিয়ে জ্বাল দিন। চিনি মিশে গেলে নামিয়ে নিন। পুরাপুরি ঠান্ডা করে নিন তারপর রসগোল্লায় ঢেলে দিন।

রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা একটি ওয়েব ম্যাগাজিন। রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা, ঘুড়ি এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। “রেসিপি.ঘুড়ি.বাংলা“ হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গল্প ও কবিতার ওয়েবসাইটগুলোর মধ্যে অন্যতম। আমাদের ওয়েবসাইটটি দেশের গন্ডি পেরিয়ে ভারত, নেপাল, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশের মানুষের কাছে যেতে সক্ষম হয়েছে।